" " " "

শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম জেনে নিন (সহজ ভাষায়)

আসসালামু আলাইকুম ক্রিকেট খেলাটি বাংলাদেশে অনেক জনপ্রিয়। এরমধ্যে শর্ট পিচ ক্রিকেট আরও জনপ্রিয়। যার কারণে উদাহরণ ডটকম এর আজকের পোস্টে আমরা শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম এবং এই শর্ট পিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব।

যদিও বাংলাদেশের জাতীয় খেলা হচ্ছে হাডুডু, কিন্তু এদেশের মানুষেরা সবথেকে বেশি পাগল হচ্ছে ক্রিকেট খেলায়। এই ক্রিকেট খেলা সব থেকে বেশি জনপ্রিয় এদেশের মানুষের কাছে।

তবে এই ক্রিকেট খেলার মধ্যে আরেকটি ভাগ হচ্ছে বিভিন্ন মানুষ আনন্দের জন্য শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলে থাকে। তবে শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম এর মধ্যে কিছু পার্থক্য রয়েছে।

অর্থাৎ আমরা সচরাচর যে ধরনের ক্রিকেট খেলতে দেখি প্লেয়ারদেরকে এর থেকে বেশ কিছু আলাদা নিয়ম আছে এই শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার মধ্যে। আর এই শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম গুলোই পোস্টে এখন আলোচনা করব।

শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম

যদিও জাতীয় দলে তেমনভাবে জনপ্রিয় নয় এই শর্ট পিচ ক্রিকেট তবে গ্রাম অঞ্চলে এবং শহর অঞ্চলে ছেলেদের মধ্যে অনেক বেশি জনপ্রিয়।

একটু সময় পেলেই তারা এই শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলতে ব্যস্ত হয়ে যায়। তো আপনিও যদি এই শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলতে চান তাহলে অবশ্যই কিন্তু আপনাকেও কিন্তু শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম গুলো জেনে নিতে হবে।

মনে রাখবেন ক্রিকেট খেলার সাধারণ যে নিয়মগুলো রয়েছে শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলারও কিন্তু ওই একই নিয়ম। তবে শুধুমাত্র কিছু কিছু জায়গায় ডিফারেন্স আছে যেগুলো আপনারা পোস্ট পরলেই বুঝতে পারবেন ।

টিমের প্লেয়ার

আমরা সাধারণত যে সকল ক্রিকেট খেলা দেখি বা ক্রিকেট খেলে থাকি সেগুলোকে লং পিচ ক্রিকেট বলা হয়। আর এই লং পিচ ক্রিকেট এর মধ্যে প্লেয়ার থাকে ১১ জন করে।

কিন্তু বন্ধুরা যখন আপনি শট পিচ ক্রিকেট খেলতে যাবেন এখানে প্লেয়ার সংখ্যার একটু ভাগ বা তারতম্য রয়েছে।

যদিও যখন আপনারা শর্ট পিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলতে যাবেন সেটা আপনার নিজস্ব ইচ্ছামতো প্লেয়ার সংখ্যা রাখতে পারবেন।

কিন্তু যেহেতু সবকিছু শর্ট এই কারণে এখানে আপনাকে অবশ্যই কম প্লেয়ার সংখ্যা নিয়ে খেলতে হবে। যদি আপনি বেশি সংখ্যক প্লেয়ার নিয়ে এই খেলাটি চালাতে চান তাহলে খেলাটি ভেঙ্গে যাবে।

সাধারণত শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম এর মধ্যে এখানে পাঁচ থেকে ছয় জন প্লেয়ার নিয়ে খেলতে হয়। তবে আপনার ইচ্ছামত চারজন কিংবা ৮ বা ৯ জন নিয়েও খেলতে পারবেন।

এখানে সম্পূর্ণ আপনার ব্যক্তিগত ইচ্ছা যে কতজন প্লেয়ার রাখবেন। কিন্তু যেহেতু এই খেলার একটি নিয়ম আছে তাই এখানে সর্বোচ্চ ৫ থেকে ৬ জন প্রতি দলে রাখা হয়।

পিচ এর আকার: নামের মধ্যে যেহেতু এখানে শর্ট পিচ লেখা আছে তাহলে বুঝতেও পারছেন যে এর পিচ ও অনেক শর্ট হবে। পিচ মানে হচ্ছে ক্রিকেট খেলার সময় বল মেরে যে অংশে দৌড়া দৌড়ি করা হয়।

সাধারণত ক্রিকেট খেলার সময় যে পিচ দেখতে পাওয়া যায় শর্ট পিস ক্রিকেট খেলার সময় এই পিস এর পরিমাণ অর্ধেক কিংবা তিনভাগের দুই ভাগ হয়ে যায়।

অর্থাৎ আপনি যদি একটি শর্ট পিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলতে চান তাহলে আপনাকে অবশ্যই এই পিচ এর দৈর্ঘ্য কমিয়ে নিয়ে আসতে হবে কিছুটা।

যদিও অনেকেই আগের বড় পিচেই খেলতে পছন্দ করে এরপরও যদি আপনারা যান তাহলে নিজের ইচ্ছামত এর আকারটি বানিয়ে নিতে পারবেন।

শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার মাঠের পরিমাপ

মনে রাখবেন শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম এর মধ্যে মাঠের পরিমাপের ব্যাপারটা খুবই বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ যদি আপনি মাঠের পরিমাপ ভালোমতো না বোঝেন তাহলে আপনার এই শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলা হবে না।

আমরা সাধারণত যে বড় বা লং পিচ ক্রিকেট খেলে থাকে সেখানে অনেক বড় মাঠ রাখা হয়। আর এই মাঠে চার কিংবা ছয় রান করতে কিন্তু অনেক বেশি কষ্ট হয়।

আর শর্ট পিস ক্রিকেট খেলার সময় এখানে মাঠের পরিমাণ অনেক কমিয়ান হয়। লং পিস ক্রিকেট এর তুলনায় শর্ট পিস এর মাঠ সাধারণত অর্ধেক হয়ে থাকে।

কিন্তু আপনারা চাইলে আপনাদের সুবিধামতো ছোট মাঠ বানিয়ে এখানে খেলতে পারবেন।

চার ছয় মারার নিয়ম

মনে রাখবেন এখানে শর্ট পিস ক্রিকেট খেলার সময় যদি কেউ বল মেরে বাউন্ডারি পার করে ফেলে একবারে তাহলে কিন্তু সেটা ছয় হয়।

তবে এখানে অনেক সময় দেখা যায় অনেকেই শর্ট-পিস ক্রিকেট খেলার সময় এই ছয় মার কে আউট ধরে।

অর্থাৎ আপনি যদি শর্টপিচ ক্রিকেট খেলতে চান তাহলে এখানে ছয় মারলে আপনি আউট হয়ে যাবেন। কিন্তু হ্যাঁ কিছু কিছু জায়গায় এই খেলার নিয়ম পাল্টিয়ে ছয় মারার নিয়মও রাখা হয়।

আর এখানে বল মারার পরে মাটিতে ড্রপ খেয়ে যদি বাউন্ডারি পার হয়ে যায় তাহলে নিশ্চিন্তে চার হয়। এই চারর এর নিয়ম এর মধ্যে কোন ধরনের তফাৎ নেই ।

আবার লং পিচ ক্রিকেট এর মধ্যে যেমন সিঙ্গেল রান নেওয়া হয় এই শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম এর মধ্যেও সিঙ্গেল রান নেওয়া যায়।

অর্থাৎ আপনি বল মারার পর যদি দুইজনে একবার দৌড়িয়ে পিস এপাশ থেকে ওপাশে যাতায়াত করতে পারেন তাহলে এক রান হয়ে যাবে।

আউট সমুহ

লং পিস ক্রিকেট এর মধ্যে যে সমস্ত আউট এর নিয়ম আছে এই শর্ট পিস ক্রিকেট এর মধ্যেও ওই একই নিয়ম গুলো রয়েছে।

অর্থাৎ এখানে বল সরাসরি ফিল্ডার ক্যাচ ধরে ফেললে আউট হয়। আবার সিঙ্গেল রান নেওয়ার সময় প্লেয়ার এপারে আসার আগে স্টাম্পে লাগালে আউট হয় এবং বল করার সময় সরাসরি বল গিয়ে স্ট্যাম্প এ লাগলে আউট হয় ।

এই সমস্ত নিয়মগুলো কিন্তু লং পিস ক্রিকেট এর মধ্যেও আছে। কিন্তু হ্যাঁ এখানে শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার সময় বিভিন্ন জায়গায় দেখা যায় তারা বলে যে ৬ মারলে আউট হয়ে যাবে।

আপনি যেখানে শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলবেন সেখানে যদি ছয় মারলে আউট হবে এই নিয়ম রাখা হয় তাহলে কিন্তু ছয় মারলেও এই শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলাতে আউট হয়ে যাবেন।

ওভার ও বল

মনে রাখবেন শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম এর মধ্যে ওভার এবং বল এরও কিছু বৈষম্য লক্ষ্য করা যায়। এমনিতে লাং পিচ ক্রিকেট এর মধ্যে ২০ ওভার কিংবা ৫০ ওভার হয়ে থাকে

কিন্তু হ্যাঁ শর্ট পিচ ক্রিকেট সাধারণত ৮ বা ১০ ওভার করে খেলা হয়। আবার অনেক সময় দেখা যায় যে এই ক্রিকেট খেলার সময় ও ২০ ওভার কিংবা ৩০ ওভার করেও দেওয়া হয়।

আপনি যেখানে শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলবেন সেখান থেকে যে কয়েকটি ওভার নির্ধারণ করে দেওয়া হবে প্রতি দল সেই কয়টি করে ওভার খেলে একটি করে ইনিংস শেষ করবে ।

এভাবে আপনারা খেলাটি দুইটি ইনিংসের মাধ্যমে শেষ করে ফেলবেন। কিন্তু হ্যাঁ প্রতি ওভারে মোট ছয়টি করে বল দেওয়া হবে।

অর্থাৎ ছয়টি বল খেললে একটি করে ওভার শেষ হয়ে যাবে। এই ছয়টি বলের মাধ্যমে যে এক ওভার হয় এটা কিন্তু কোন ক্রিকেট খেলার নিয়মের মধ্যে আলাদা হয়না, প্রতিটা খেলার মধ্যেই এই নিয়মটি থাকে।

অন্যান্য কিছু শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম

উপরে আমরা বেশ কিছু নিয়ম আপনাদের কে জানিয়ে দিয়েছি। কিন্তু আরো অনেক ছোট ছোট নিয়ম আছে যেগুলো এখন আলোচনা করা হবে ।

যেমন এখানে যদি বল ওয়াইড হয়ে যায় তাহলে কিন্তু এক্সট্রা এক রান দেয়া হয়। আবার নো বল এর নিয়ম গুলোও এখানে কার্যকর হয়।

এছাড়াও long পিচ ক্রিকেট খেলার জন্য যে সকল যাবতীয় নিয়মগুলো প্রযোজ্য এখানে শর্ট পিচ এর ক্ষেত্রেও সকল নিয়মগুলো প্রযোজ্য হয়।

শেষ কথা

উপরে আপনাদেরকে শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম গুলো সহজ ভাষায় যাবতীয় বিস্তারিত আলোচনা করে বোঝানো হয়েছে।

এখানে সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ কথা হচ্ছে আপনারা যেখানে শর্ট পিস ক্রিকেট টুর্নামেন্ট খেলবেন সেখান থেকে যে সকল নিয়ম নির্ধারণ করে দেওয়া হবে সেগুলো বাস্তবায়ন হবে।

তবে লং পিচ এবং শর্ট পিচ ক্রিকেট এর মধ্যে সবথেকে বড় পার্থক্য হচ্ছে এখানে মাঠের পরিমাণ একটু ছোট ও বড় থাকে ।

আবার দেখা যায় প্লেয়ার এবং ওভারের সংখ্যাও অনেক কম হয়ে থাকে লং পিচ ক্রিকেট খেলার নিয়ম এর মধ্যে।

যদি আপনারা এই সকল নিয়ম অনুযায়ী এ শর্ট পিচ ক্রিকেট খেলতে চান তাহলে অবশ্যই খেলতে পারবেন।

এরপরও যদি এই ক্রিকেট খেলার নিয়মটি নিয়ে আপনার মনে প্রশ্ন থাকে তাহলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন কিংবা আমাদের ফেসবুক পেজে নক দিয়ে যেকোন প্রশ্ন করতে পারেন।

ভালো লাগতে পারে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button